Home বিষয় আল্লাহ্ সম্পর্কে একটু ভেবে দেখুন এবং কৃতজ্ঞ হােন

একটু ভেবে দেখুন এবং কৃতজ্ঞ হােন

0
415

লেখকঃ ড. আয়িদ আল করনী | অনুবাদঃ ডা. হাফেজ মাওলানা মােহাম্মদ নূর হােছাইন

আপনার প্রতি আল্লাহ্ তায়ালার অসংখ্য করুণার কথা স্মরণ করুন, কীভাবে সে করুণাসমূহ আপনাকে আপাদমস্তক বেষ্টন করে রেখেছে-আসলে সর্বদিক দিয়েই ঐ করুণাসমূহ আপনাকে ঘিরে রেখেছে।

যদি তুমি আল্লাহর নিয়ামতরাজিকে গণনা করতে চাও তবে তা তুমি কখনও গণনা করে শেষ করতে পারবে না।” [১৪-সূরা ইবরাহীম : আয়াত-৩৪]

সুস্থতা, নিরাপত্তা, খাদ্য, বস্ত্র, বায়ু ও পানি ইত্যাদি সবকিছুই দুনিয়াটাকে আপনার বলে ঘােষণা দিচ্ছে-তবুও আপনি বুঝতে পারছেন না। জীবন ধারণের জন্য অপরিহার্য প্রয়ােজনীয় যা কিছু থাকতে হয় তার সবকিছুই আপনার আছে- তবুও আপনি অজ্ঞই থেকে গেলেন।

তিনি তােমাদের উপর তার প্রকাশ্য ও গােপন নিয়ামতসমূহ পূর্ণ করে রেখেছেন।” [৩১-সূরা লুকমান : আয়াত-২০]

(প্রকাশ্য নিয়ামত হল ইসলামী একত্ববাদ বা তাওহীদ এবং সুস্থতা, সৌন্দর্য ইত্যাদিসহ এ জগতের বৈধ যৌন আমােদপ্রমােদ। আর অপ্রকাশ্য বা গােপন নিয়ামত হল আল্লাহর প্রতি কারাে ঈমান, আমলে সালেহ বা সকাজের জন্য পথনির্দেশক, কুরআনের উপর ঈমান এবং আখেরাতে বেহেশতের আনন্দ-ফুর্তি ইত্যাদির প্রতি ঈমান।) নিজের আয়ত্তে আপনার দু’টি আঁখি, একটি জিহ্বা, দু’টি ঠোট, দু’টি হাত আর দুটি পা আছে। (একটু ভেবে দেখুন ও কৃতজ্ঞ হােন অনুবাদক)

সুতরাং (হে জ্বীন ও ইনসান জাতি!) তােমরা উভয় জাতি তােমাদের প্রতিপালকের কোন্ কোন্ নিয়ামতকে অস্বীকার করবে?” [৫৫-সূরা আর রাহমান : আয়াত-১৩]

পা ছাড়া হাঁটার কথা কল্পনা করতে পারেন কি? আপনি কি এ বিষয়টি হাল্কা করে দেখবেন যে, আপনি সুখে দ্রিা যাচ্ছেন, অথচ দুঃখ-যাতনা, দুর্দশা ও দুরাবস্থা বহুলােকের নিদ্রার অন্তরায় হয়ে আছে।

আপনি একথা কি ভুলে যাবেন যে, আপনি সুস্বাদু খাদ্য ও শীতল পানি উভয়টা দ্বারা নিজের উদর পূর্তি করছেন অথচ রােগ-বালাইয়ের কারণে কিছু লােকের পক্ষে সুখাদ্য, ও সুপেয় পানীয়ের মজা উপভােগ করা অসম্ভব হয়ে আছে। আপনার শ্রবণশক্তি ও দর্শনশক্তির কথা ভেবে দেখুন! আপনার সুস্থ ত্বকের দিকে তাকান এবং আপনি যে চর্মরােগ থেকে মুক্ত আছেন এজন্য আল্লাহর কাছে শুকরিয়া জ্ঞাপন করুন। আপনার বিবেচনা শক্তির কথা গভীরভাবে ভেবে দেখুন ও যারা মানসিক রােগে ভুগছে তাদের কষ্টের কথা একটুখানি মনে করে দেখুন।

উহুদ পাহাড়সম স্বর্ণের বিনিময়ে আপনি কি আপনার শ্রম ও দর্শন ক্ষমতা বিক্রি করে দিবেন নাকি আপনার কথা বলার ক্ষমতা বিশাল বিশাল অট্টালিকার বিনিময়ে বিক্রি করে দিবেন? আপনাকে প্রচুর অনুগ্রহ দান করা হয়েছে, তবুও আপনি না জানার ভান করছেন! টাটকা খাবার, শীতল পানি, সুখপ্রদ দ্রিা এবং সুস্বাস্থ্য সত্ত্বেও আপনি হতাশ ও বিষন্ন থাকছেন! আপনার যা নেই তা নিয়ে ভাবছেন এবং যা আপনাকে দান করা হয়েছে তার নিমিত্তে কৃতজ্ঞ হওয়ার পরিবর্তে বরং অকৃতজ্ঞ হচ্ছেন! সম্পদের ক্ষতি নিয়ে আপনি ব্ৰিত, তথাপি অনেক কল্যাণের চাবিকাঠি আপনার হাতে ন্যস্ত। একটু ভেবে দেখুন এবং কৃতজ্ঞ হন।

এবং তােমাদের নিজেদের মধ্যেও (আমার নিদর্শন আছে), তাহলে তােমরা কি (তা) দেখতে পাও না?” [৫১-সূরা যারিয়াত : আয়াত-২১] আপনার নিজের কথা, আপনার পরিবারের কথা, আপনার বন্ধু-বান্ধবের এবং আপনার চারপাশের গােটা দুনিয়ার কথা গভীরভাবে চিন্তা-গবেষণা করুন।

তারা আল্লাহর নিয়ামতকে অনুধাবন করতে পারে, তবুও তা তারা অস্বীকার করে তাদের অধিকাংশই কাফের।” [১৬-সূরা আন নাহল : আয়াত-৮৩]

উৎসঃ লা তাহযান [হতাশ হবেন না], ক্রমিক নংঃ ২ , পৃষ্ঠা: ৩১ – ৩৩

Print Friendly, PDF & Email


'আপনিও হোন ইসলামের প্রচারক'
প্রবন্ধের লেখা অপরিবর্তন রেখে এবং উৎস উল্লেখ্য করে
আপনি Facebook, Twitter, ব্লগ, আপনার বন্ধুদের Email Address সহ অন্য Social Networking ওয়েবসাইটে শেয়ার করতে পারেন, মানবতার মুক্তির লক্ষ্যে ইসলামের আলো ছড়িয়ে দিন। "কেউ হেদায়েতের দিকে আহবান করলে যতজন তার অনুসরণ করবে প্রত্যেকের সমান সওয়াবের অধিকারী সে হবে, তবে যারা অনুসরণ করেছে তাদের সওয়াবে কোন কমতি হবেনা" [সহীহ্ মুসলিম: ২৬৭৪]

NO COMMENTS

আপনার মন্তব্য লিখুন